WELCOME TO NANDAIL NEWS - REFLECTION OF TIME - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ -সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ -সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি

27 July 2015


চাঞ্চল্যকর বাবা ও তিন ছেলে হত্যাকাণ্ড
নান্দাইলে খুনিদের ফাঁসি দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বাঁশহাটি গ্রামে চাঞ্চল্যকর নবম শ্রেণির স্কুল ছাত্র হিমেল ও পাভেলসহ একই পরিবারের চার সদস্য হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে এবং খুনিদের ফাঁসি দাবি জানিয়ে আজ সোমবার (২৭ জুলাই) সকালে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরানান্দাইল -কেন্দুয়া সড়কে বাঁশহাটি এলাকায় বাঁশহাটি উচ্চ বিদ্যালয় ও বাঁশহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধনের আয়োজন করেএতে স্থানীয় এলাকাবাসীও মানববন্ধনে অংশ নেন  মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের দাবি প্রকৃত খুনিদের আইনের আওতায় এনে ফাঁসি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করার

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. মনোয়ার হোসেন ভূঁইয়া, চন্ডীপাশা ইউপি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূঁইয়া, প্রধান শিক্ষক মাসুদুল হক, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সহকারী প্রধান শিক্ষক নাছির উদ্দিন ভূঁইয়া প্রমূখ 

উল্লেখ্য, গত ০৩ জুলাই রাত ১০টার দিকে বিল্লাল হোসেন ও তাঁর তিন ছেলে ফরিদ, পাভেল, হিমেলকে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে তাঁরই সহোদর ভাই ও ভাতিজারাস্বামী সন্তানদের রক্ষা করতে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন বিল্লালের স্ত্রী বানেছাএ খুনের দৃশ্য প্রত্যক্ষকরা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত আরেক ছেলে কিরণ মিয়া গত ১১ জুলাই রাতে মারা গেছেচাঞ্চল্যকর এই চার খুনের ঘটনায় গত ০৫ জুলাই বানেছা আক্তার বাদি হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় ১২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত কয়েকজনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দায়ের করেন  মামলাটি বর্তমানে ডিবি পুলিশ তদন্ত করছেএর মধ্যে নিহত বিল্লালের বড় ভাই প্রধান অভিযুক্ত লাল মিয়া, অন্যতম আসামী হিরণ মিয়া, কামাল ও হারুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে

25 July 2015

নান্দাইলের শহীদের স্ত্রী ও সাংবাদিক মজুমদার প্রবালের মা জয়ন্তী মজুমদার আর নেই
বিভিন্ন জনের শোক প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
৭১-এ শহীদ হীরেন্দ্র চন্দ্র মজুমদারের স্ত্রী ও দৈনিক সমকালের ময়মনসিংহের নান্দাইল প্রতিনিধি-শিক্ষক মজুমদার প্রবালের মা জয়ন্তী মজুমদার (৯৫) আর নেইআজ শনিবার (২৫ জুলাই) বিকেলে উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের খামারগাঁও গ্রামে সরকার বাড়ি খ্যাত নিজ বাসভবনে তিনি পরলোকগমন করেছেন

মৃত্যুকালে জয়ন্তী মজুমদার ৩ ছেলে, ৪ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্যক গুণগ্রাহি রেখে গেছেনগত ৪ বছর যাবৎ তিনি শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে শয্যাশায়ী ছিলেনশনিবার সন্ধ্যা ৬টায় সরকার বাড়ির নিজস্ব শ্মশান কদম তলায় তাঁকে সৎকার করা হয়

জয়ন্তী মজুমদারের মৃত্যুতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম ভূঁইয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গাজী আব্দুস সালাম ভূঁইয়া বীরপ্রতীক, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক কামরুল হুদা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন ভূঁইয়া, সংগীত শিল্পী ও গীতিকার, খোকন দেবনাথ, সাংবাদিকদের মধ্যে আলম ফরাজী, প্রথম আলোর প্রতিনিধি রমেশ কুমার পার্থ, সংবাদ প্রতিনিধি কামরুজ্জামান খান গেনু, ইত্তেফাক, এশিয়ান টিভি ও স্বজন প্রতিনিধি শাহ্ আলম ভূঁইয়া, যায়যায়দিন প্রতিনিধি হুমায়ুন কবীর ভূঞা প্রমূখ পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেনজয়ন্তী মজুমদারের মৃত্যুতে নান্দাইলের প্রথম অনলাইন পত্রিকা নান্দাইল নিউজ পরিবারও গভীর শোক প্রকাশ করেছে 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলার সময় রাজাকার বাহিনীর সদস্যরা সরকার বাড়ির তিন সহোদর খগেন্দ্র জীবন মজুমদার, হীরেন্দ্র চন্দ্র মজুমদার, ভুপেন্দ্র চন্দ্র মজুমদারকে ধরে নিয়ে যায়পরে তাঁদেরকে হানাদার পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে তুলে দেয় বলে এলাকায় প্রচার রয়েছেদেশ স্বাধীন হওয়ার পর দেশের বিভিন্নস্থানে খোঁজ করেও তিন সহোদরের আর কোন সন্ধান পাওয়া যায়নিমুক্তিযুদ্ধে এই পরিবারের অবদানের কথা উল্লেখ করে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান নিজ হাতে লিখে একটি চিঠি পাঠান জয়ন্তী মজুমদারের কাছেচিঠিটি ওই পরিবারের কাছে এখনও গচ্ছিত রয়েছে 

22 July 2015


নান্দাইলে শ্বশুর বাড়িতে জামাই নির্যাতনের শিকার !
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বালিয়াপাড়া গ্রামে আজ বুধবার (২২ জুলাই) সকালে শ্বশুর বাড়িতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন জামাই সাইফুল ইসলাম (৩২)তাঁকে আহত অবস্থায় নান্দাইল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

সাইফুল নান্দাইল সদর ইউনিয়নের ভাটিসাভার গ্রামের আহমেদ আলীর ছেলেশ্বশুরের কাছে পাওনা টাকা চাইলে তিনি শ্বশুর ও শ্যালকের মারধরের শিকার হনচিকিৎসাধীন সাইফুল ইসলাম বলেন, তিনি গাজীপুরে একটি গার্মেণ্টেসে চাকরি করেন২০০৮ সালে নান্দাইলের বালিয়াপাড়া গ্রামের সুরুজ আলীর মেয়ে জিবুন্নাহারকে বিয়ে করেনবিয়ের পর তাঁর শ্বশুর বিভিন্ন প্রয়োজনে তাঁর কাছ দুই লাখ টাকা ধার নেনপরে ওই অর্থ ফেরত চাইতে গেলে তাঁর প্রতি প্রচণ্ড ক্ষুদ্ধ হতেন শ্বশুর

সম্প্রতি তিনি ঈদের ছুটিতে বাড়ি এসে স্ত্রী জিবুন্নাহারকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে যানগত মঙ্গলবার ছিল তাঁর শ্যালক আনোয়ার হোসেনের বিয়েতিনি ওই বিয়েতে অংশ নেনবিয়েতে আর্থিক খরচ বহনে অপারগতা জানালে শ্বশুর তাঁকে সকলের সামনে অপমান করলে তিনি বিয়ের আসর থেকে রাগ করে নিজ গ্রামে চলে যানসাইফুল জানান, আজ বুধবার সকালে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে আসার জন্যে শ্বশুর বাড়িতে যান  ওই সময় তিনি ধারের টাকা ফেরত চাইলে শ্বশুর সুরুজ আলী ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁকে গালাগাল শুরু করেনতিনি প্রতিবাদ জানালে শ্বশুর তাকে উঠোনে ফেলে মারধর শুরু করেনতাঁর শাশুড়ি ও দুই শ্যালকও তাঁকে মারধর করেঘটনার সময় তাঁর স্ত্রী উপস্থিত থাকলেও সে প্রতিবাদ না করে উস্কানি দেয়

এ বিষয়ে জানার জন্যে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে শ্বশুর সুরুজকে পাওয়া যায়নিতবে সুরুজের চাচাতো ভাই লাল মিয়া জানান,  জামাইয়ের সাথে কিছু ঠেলাধাক্কা হয়েছে শুনেছিএ ঘটনায় থানায় মামলা হয়নি।  

15 July 2015

নান্দাইলের বাঁশহাটি গ্রামে বাবা ও তিন ছেলে হত্যাকাণ্ড
ভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়া তিন সদস্যের নিরানন্দ ঈদ

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
শুন শান নিরবতা, পুরো বাড়ি ফাঁকা, নেই কোন মানুষের বসতিএটি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বাঁশহাটি গ্রামের বাবা ও তিন ছেলে নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার পরিবারটির বসতভিটের বর্তমান অবস্থানিহত কাঠমিস্ত্রি বিল্লাল হোসেনের পরিবারের বেঁচে থাকা সদস্যদের আতঙ্ক এখনো কাটছে নাসন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হন গৃহবধূ বানেছা আক্তারওতিনি ভাগ্যক্রমে বেঁেচ যাওয়া তার দুই সন্তান নিয়ে একই এলাকায় বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন

আসন্ন ঈদের কথা জিজ্ঞেস করতেই সপ্তম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী এক মাত্র মেয়ে মুক্তাকে জড়িয়ে ধরে হু হু করে কেঁেদ ওঠে বানেছা বলেন, খুনিরা আমার সুখ আনন্দ কাইড়া (কেড়ে) নিছেআমার স্বামীরে মাইরালাইছে (মেরেছে) , ছেলেরারে মাইরালাইছে,  আমি এত কষ্ট নিয়া বাইচ্চা ( বেঁচে) থাকইক্যা  (থেকে) করবাম (করব) কি ? 

কান্না থামলে এক প্রশ্নের উত্তরে বানেছা জানান, প্রতি ঈদে তিনি নতুন শাড়ি, মেয়ে-ছেলেরা বাবার কাছ থেকে নতুন জামা কাপড় পেতোএকটি বোনকে ভাইয়েরা মিলে নানান উপহার দিতো এবার সব কিছুই অতীত, স্মৃতিখুব দামি না হলেও কম দামের উপহারগুলো তাদের গবীর পরিবারে আনন্দের ঢেউ খেলে যেতোএবার সেই আনন্দের রেশটুকুও নেই পরিবারটির মাঝেবরং এক ধরনের অসহায়ত্ব ও চাপা আতংক বিরাজ করছেএটা শুধু ওই পরিবারেই নয় গোটা গ্রাম জুড়ে একই আবস্থা

ওই গ্রামে গিয়ে মামা বকুল মিয়ার বাড়িতে দেখা মেলে মেয়ে মুক্তা ও মানসিক বিকারগ্রস্থ ছেলে রুবেল ও অসুস্থ মা বানেছা আক্তারের  বকুল মিয়া জানান, গুরুতর অসুস্থ বানেছা নিহত তিন ছেলে ও স্বামীর  মুখ শেষবারের মত দেখতে পারেননি

গত ০৩ জুলাই (শুক্রবার) রাত ১০টার দিকে বিল্লাল হোসেন ও তাঁর তিন ছেলে ফরিদ, পাভেল, হিমেলকে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে তাঁরই সহোদর ভাই ও ভাতিজারাস্বামী সন্তানদের রক্ষা করতে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন বিল্লালের স্ত্রী বানেছা

হত্যাকা- থেকে বেঁচে যাওয়া বিল্লালের দুই ছেলে কিরণ মিয়া, রুবেল মিয়া ও একমাত্র মেয়ে মুক্তাকে ঘটনার পর তাঁদের মামার বাড়িতে সরিয়ে নেওয়া হয়এ খুনের দৃশ্য প্রত্যক্ষকরা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত কিরণ মিয়া গত ১১ জুলাই রাতে মারা গেছেকিরণ মারা যাওয়ার পর স্বজনরা বানেছাকে ওই পুত্রের মুখ দেখার জন্যে অসুস্থ অবস্থায়ই হাসপাতাল থেকে বাপের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়

চার খুনের ঘটনায় গত ০৫ জুলাই বানেছা আক্তার বাদি হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় ১২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত কয়েকজনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দায়ের করেন  মামলাটি বর্তমানে ডিবি পুলিশ তদন্ত করছেএর মধ্যে নিহত বিল্লালের বড় ভাই প্রধান অভিযুক্ত লাল মিয়া, অন্যতম আসামী হিরণ মিয়া, কামাল ও হারুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছেগ্রামবাসী অভিযুক্তদের কঠোর বিচার দাবি করছেন  

07 July 2015


নান্দাইলে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের মাঝে পরিচয়পত্র বিতরণ 
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের মাঝে মঙ্গলবার (০৭ জুলাই) সকালে পরিচয়পত্র বিতরণ করা হয়েছে

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহানূর আলম তাঁর কার্যালয়ে উপস্থিত সদস্যদের মাঝে পরিচয়পত্র প্রদান করেনএ সময় উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি গাজী আব্দুল সালাম ভূঁইয়া বীরপ্রতীক, সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক কামরুল হুদা উপস্থিত ছিলেনইউএনও কমিটির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল হাই, প্রভাষক মরিয়ম, সদস্য সাংবাদিক শাহ্ আলম ভূঁইয়া, শফিকুজ্জামান জুয়েল, প্রভাষক শামীমা নাসরীন, প্রদর্শক নাজমীন আক্তারের হাতে দুর্নীতি দমন কমিশন থেকে প্রেরীত পরিচয়পত্রগুলো তুলে দেন

ইতোপূর্বে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ময়মনসিংহ জেলা দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত কার্যালয় থেকে পরিচয়পত্র গ্রহণ করেন 

05 July 2015

নান্দাইলের বাঁশহাটি গ্রামে চার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানায় মামলা, আটক দুই
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইলের আলোচিত চার খুনের ঘটনায় আজ রবিবার (০৫ জুলাই) নান্দাইল মডেল থানায় ১৩ জনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা হয়েছেমামলার বাদি হয়েছেন নিহত বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী বানেছা আক্তার

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আবদুল্লাহ এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এজাহারভুক্ত দুজনকে গত শনিবার রাতে আটক করেছে একটি গোয়েন্দা সংস্থা আটককৃতরা হচ্ছেন মো. আলী আকবর ও হারুন মিয়াআটককৃতরা বাশহাটি এলাকার বাসিন্দা

 আলী আকবরের স্ত্রী স্কুল শিক্ষিকা শাহানা আক্তার জানান, খুনের ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা বলে শনিবার রাত ১২টার দিকে তাঁর স্বামীকে গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন ডেকে নিয়ে যায়

জানা যায়, গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সহোদর বড় ভাই, ভাতিজা ও অজ্ঞাত লোকজনের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে  নৃশংসভাবে খুন হন বাশহাটি গ্রামের মিস্ত্রি বিল্লাল হোসেন ও তার তিন ছেলে ফরিদ, পাভেল ও হিমেল  এ সময় তাঁদের বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন বিল্লালের স্ত্রী বানেছা আক্তার (৫০)তিনি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীনএলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বড় ভাই লাল মিয়ার সাথে বিল্লাল ও তাঁর ছেলেদের পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে দীর্র্ঘদিন ধরে চলা দ্বন্দ্বের জের ধরে এই খুনের ঘটনা ঘটে

04 July 2015


নান্দাইলে পিতাসহ তিন পুত্রকে কুপিয়ে হত্যা, প্রতিপক্ষের একজনের লাশ উদ্ধার
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের উত্তর বাঁশহাটি গ্রামে পিতাসহ তিন পুত্রকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা  হয়েছেগত  শুক্রবার ( ০৩ জুলাই) দিবাগত রাত ১০টার দিকে এই চার খুনের ঘটনাটি ঘটে  নিহতরা হলেন বাবা বিল্লাল মিস্ত্রী (৫৫), তার পুত্র ৯ম শ্রেণির স্কুল ছাত্র হিমেল (১৩), ১০ম শ্রেণির স্কুল ছাত্র পাভেল (১৫) ও বড় ছেলে কৃষক ফরিদ মিয়া (২৮)এ ঘটনায় নিহত বেলালের স্ত্রী বানেছা বেগমও (৪৫) গুরুতর আহত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেনঘটনার পর লাল মিয়ার পরিবারের সকল সদস্য বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে
অপরদিকে, আজ শনিবার (৪ জুলাই) ভোরে লংপুর এলাকার ধলেশ্বরী নামে এক খালের পাড় থেকে জামাল উদ্দিন (২৬) নামে আরও এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশএলাকাবাসী জানায়, তিনি লাল মিয়ার ছেলেচার খুনের সাথে তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছেতবে তার শরীরে জখমের কোন চিহৃ ছিল না তবে সুরতহাল প্রস্তুতকারী এসআই মুরাদ আলী শেখ জানান, জামাল উদ্দিনের বুকে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

ওই গ্রামের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিবেশি চাচাতো ভাই আকবর আলীর একটি পুকুর দেখাশোনা করতো নিহত বিল্লাল মিস্ত্রির বড় ভাই লাল মিয়া (৬০)সেই পুকুরে তাদের আরেক ভাই কাজল মিয়ার ছেলে কোরবান (৮) বর্শিতে একটি কই মাছ ধরে  এ নিয়ে লাল মিয়া ও কাজলের পরিবারের মধ্যে ঝগড়া হয় গত বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঝগড়ায় বিল্লাল মিস্ত্রি ও তার ছেলেরা অংশ না নেওয়ায় লাল মিয়া ও তার সন্তানরা ক্ষিপ্ত হয় বিল্লালের পরিবারের উপরকাজলের পক্ষ নিয়েছে বিল্লাল -এ সন্দেহে লালা মিয়া ও তার ছেলে জামাল, কামালসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা শুক্রবার তারাবির নামাজের পর ( রাত ১০ টার দিকে) বিল্লাল মিস্ত্রির ঘরে ঢুকে তাদের দেশিয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেএতে ঘরের ভিতরে বিল্লাল মিস্ত্রি ও তার ছেলে পাভেল নৃশংসভাবে খুন হনএ সময় অপর দুই ভাই  ফরিদ ও হিমেল প্রাণ ভয়ে দৌড়ে পালাতে চাইলে তাদেরকেও ধাওয়া করে বাড়ির পাশের সড়কের ওপর ফেলে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করেএ ঘটনার পর রাত থেকে দলে দলে লোকজন ওই গ্রামে গিয়ে ভিড় করছেসাধারণ একটি বিষয় নিয়ে বড় ধরনের এই খুনের ঘটনায় এলাকাবাসী হতবাক

নিহত বিল্লাল মিস্ত্রির বোন কোকিলা বেগম (৪৫) বিলাপ করতে করতে জানান, তার বাবা মকবুল হোসেন ওরফে বগার বাপ তাকে পাঁচ শতক জমি দিয়ে যানকিন্তু দলিল করে দিতে পারেননি বাবাতার ভাই  লালা মিয়া ওই জায়গা থেকে তাকে উচ্ছেদ করে তা অন্যত্র বিক্রি করার চেষ্টা করছে দীর্ঘদিন ধরেবিল্লাল বোনের পক্ষ নেওয়ায় মাছ ধরার ঘটনাকে উছিলা করে লাল মিয়া ও তার ছেলেরা লোকজনদের দিয়ে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে

নিহত বিল্লাল মিস্ত্রির পালিয়ে বেঁচে যাওয়া ছেলে রুবেল মিয়া (২২) জানান, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন ফরিদকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে  তিনি দৌড়ে চিৎকার করে বাবা মাকে ডাকতে ঘরে দিয়ে দেখেন সেখানে তাদের লাশ মাটিতে পড়ে আছে
ঘরে হত্যাকান্ড সংঘটিত হওয়ার সময় সেখানে উপস্থিত ক্যান্সার আক্রান্ত বেলাল মিস্ত্রির আরেক ছেলে কিরণ (২৬), মেয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী মুক্তা (১৩) জানায়, তার চাচা লাল মিয়া, চাচাতো ভাই কামাল, জামাল, চাচা কাজলের ছেলে হিরণ (১৯), আবুল (১৭) ও অপরিচিত কয়েকজন তাদের বাবা ও ভাইকে হত্যা করেছে

স্থানীয় চন্ডীপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূঁইয়া বলেন, একটি সাধারণ ঘটনা নিয়ে এতো বড় খুনের ঘটনা এ এলাকায় ইতিপূর্বে ঘটেনিএর সুষ্ঠু বিচার হওয়া প্রয়োজনঘটনার পর থেকে জেলা পুলিশ সুপার, র‌্যাব কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছে 

জানতে চাইলে নান্দাইল মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (ওসি) সৈয়দ আব্দুল্লাহ বলেন, ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছেঘটনাস্থল থেকে লাশগুলো উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছেএ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে

02 July 2015

নান্দাইলে সৎ ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন 
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর ইউপির কড়ইকান্দি এলাকায় সৎ বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই শহীদুল ইসলাম (৪৮) খুন হয়েছেন

জানা যায়, ওই গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছোট ছেলে শহীদুল ইসলামের পোষা কুকুর গত বুধবার (০১ জুলাই) সন্ধ্যায় বড় ভাই মেনু মিয়ার ইফতারিতে মুখ দেয়এ নিয়ে শহীদুলের স্ত্রীর সাথে মেনু মিয়া ও তার ছেলে মঞ্জুর ঝগড়া হয়এক পর্যায়ে শহীদুল এগিয়ে এলে বড় ভাই মেনু মিয়া দেশিয় অস্ত্র দিয়ে ছোট ভাই শহীদুলের বুকে আঘাত করেসাথে সাথে গুরুতর আহত শহীদুল মাটিতে লুটিয়ে পড়েনপরে তাকে ময়মসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে বুধবার রাতে তিনি মারা যানবৃহস্পতিবার (০২ জুলাই) লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে   

জানতে চাইলে নান্দাইল মডেল থানা উপ-পরির্দশক আব্দুস সাত্তার জানান, ঘটনাস্থল গিয়ে অভিযুক্তকে পাওয়া যায়নিঘটনার পরপরই পালিয়েছেএ সংবাদ লেখা পর্যন্ত মামলা হয়নি বলে তিনি জানান


28 June 2015


আওয়ামীলীগ নেতা মনসুর ভূঁইয়া হত্যাকাণ্ড
নান্দাইলে হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে আওয়ামীলীগের মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
নান্দাইলের আলোচিত আওয়ামীলীগ নেতা আবুল মনসুর ভূঁইয়া হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে আজ রবিবার (২৮ জুন) দুপুরে পৌর শহরে উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসূচী ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছেপরে প্রধান মন্ত্রী বরাবর উপজেলা আওয়ামলীলীগের পক্ষে ইউএনওর মাধ্যমে একটি স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। 

জানা যায়, গত বছরের ২০ নভেম্বর সাবেক সাংসদ মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালামের নেতৃত্বে নান্দাইল পৌর আওয়ামীলীগের এক সমাবেশ চলাকালে সমাবেশে দুর্বত্তদের হামলা ও অস্ত্রের আঘাতে নির্মমভাবে খুন হন উপজেলা আওয়ামলীগের সদস্য আবুল মনসুর ভূঁইয়াপরে নিহতের ছোট ভাই নান্দাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম ভূঁইয়া বাদী হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় ৪৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেনওই মামলায় অভিযুক্ত সকলেই আওয়ামলীলীগ দলীয় বর্তমান সাংসদ আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিনের অনুসারীমামলাটি বর্তমানে ডিবি পুলিশ তদন্ত করছে



মনসুর ভূঁইয়া হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে ও অভিযুক্ত আসামিদের গ্রেপ্তার না করায় ক্ষোভ জানিয়ে নান্দাইল পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে স্মৃতি স্তম্ভের পাদদেশে এক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ভূঁইয়া, শাহাব উদ্দিন ভূঁইয়া, আমিনুল ইসলাম শাহান, মুশফিকুর রহমান, রফিকুল ইসলাম রেনু, নাজিম উল্লাহ লিটন, আব্দুছ ছাত্তার ভূঁইয়া, শফিকুল ইসলাম সরকার, জামাল আকন্দ প্রমূখতারপর প্রধান মন্ত্রী বরাবর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহানুর আলমের মাধ্যমে নেতৃবৃন্দ একটি স্মারক লিপি প্রদান করেন

25 June 2015


নান্দাইলে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষিত 
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌর শহরের ভাটি কান্দাপাড়া এলাকায় তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে গত বুধবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেস্থানীয় মাতব্বরদের বাধার কারণে মেয়েটি আইনি সহায়তা নিতে পারছে না বলে অভিযোগ উঠছে

জানা যায়, ওই গ্রামের প্রতিবেশি ইসলাম উদ্দিনের ছেলে বজলু মিয়া (২৫) গত মঙ্গলবার ছাত্রীটিকে একা পেয়ে পাটক্ষেতে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে গুরুতর আহত করেমেয়েটির মা মঞ্জিলা খাতুন অন্যের বাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেমেয়েটি স্থানীয় ভাটি কান্দাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীঘটনার পর অভিযুক্ত ধর্ষক বজলু বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেবজলুর মা বেদেনা আক্তার জানান, বজলুর দুই পুত্র সন্তান রয়েছেপ্রায় দেড় বছর পূর্বে তার স্ত্রী সংসার ছেড়ে চলে গেছে

ঘটনার পর থেকে স্থানীয় মাতব্বরা ঘটনাটি মিমাংসার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেফলে মেয়েটিকে স্থানীয় হাসপাতালের চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফাড করলেও সেখানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি

এ বিষয়ে নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আব্দুল্লাহ জানান, অভিযোগ পেলে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নিবেন
অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইট-এর কোন-ও অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি|

No part of content of this website may be copied or reproduced without permission.