WELCOME TO NANDAIL NEWS - REFLECTION OF TIME - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ -সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ -সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি - স্বাগতম- নান্দাইল নিউজ - সময়ের প্রতিচ্ছবি

29 September 2014


নান্দাইলে নারী নির্যাতন, যৌতুক, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে মতবিনিময় ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় নারী নির্যাতন, যৌতুক, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধি, কাজী ও প্রশাসনের লোকজনদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়েছে

আজ সোমবার দুপুরে উপজেলা পাবলিক হলে ইউএনও মো. অহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন খান

অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী নারী নির্যাতন, যৌতুক ও বাল্য বিয়ে  বন্ধে জনপ্রতিনিধি, কাজীদের এক শপথ বাক্য পাঠ করানএ সময় নান্দাইল পৌরসভা ও ১২টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি, কাজী ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আঃ মালেক চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান  হাবিবুন ফাতেমা পপি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন 

28 September 2014


নান্দাইলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামে লিজা আক্তার (৬) নামে এক শিশু পানিতে ডুবে মারা গেছেশিশুটি ওই গ্রামের হাদিস মিয়ার কন্যাআজ রবিবার বিকেলে তার মৃহদেহ উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন

এলাকাবাসী জানায়, লিজা তার সমবয়সীদের সাথে খেলার সময় সকলের অজান্তে বাড়ির পাশে পানি ভর্তি ডোবায় পড়ে যায়পরে তাকে বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজির পর তার মৃতদেহ ডোবার পানিতে ভাসতে দেখে লোকজন 

নান্দাইল মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোপাল কৃষ্ণ দাস জানান, লিজার মৃত্যু নিয়ে কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই শিশুটির মৃতদেহ পরিবারের কাছে দেয়া হয়েছে 

27 September 2014


নান্দাইলে গরুর হাটে জাল টাকা সনাক্তকরণে সোনালী ব্যাংকের ক্যাম্পেইন

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহে নান্দাইল উপজেলায় আসন্ন কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে গরুর হাটে জাল টাকা সনাক্তকরণে সোনালী ব্যাংক নান্দাইল শাখার দিনব্যাপী ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়

নান্দাইল পৌর শহরের সমূর্ত্ত জাহান মহিলা কলেজের পাশে গরুর হাটে আজ শনিবার বিকেলে ব্যাংকটির ব্যবস্থাপক মো. মোকলেছুর রহমান আকন্দ, ক্যাশ অফিসার মাজহারুল হকসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ক্যাম্পেইনে উপস্থিত থেকে ক্রেতা-বিক্রেতাদেরকে জাল টাকা সনাক্তকরণে সহযোগিতা করেন

ব্যবস্থাপক জানান, লোকবল কম থাকার কারণে আমরা এবার উপজেলা সদরের গরু-ছাগলের হাটগুলোতে এ কার্যক্রম চালু রাখব  এ ধরনের ক্যাম্পেইন ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে এ ধরনের ক্যাম্পেইন ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে

উপজেলার আচারগাঁও গ্রামের হোসেন আলী, পুরহরি গ্রামের আবুল কাশেম জানান, এ উদ্যোগের ফলে জাল টাকা চিনতে আমারদের কোন অসুবিধা হবে নাসোনালী ব্যাংকের এ ধরণের উদ্যোগের কারণে জাল টাকার ছড়াছড়ি কিছুটা হলেও কমবে 

20 September 2014


নান্দাইলে তরুণীকে আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার এক কৃষকের কন্যাকে (নাম প্রকাশ করা হলো না , বয়স ১৫) আটকে রেখে দুই যুবকসহ তিন পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছেএ ঘটনায় ওই তরুণী বাদি হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে পুলিশ গত শুক্রবার রাতে তা মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করেথানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম ফরাজী মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের জন্যে পুলিশ চেষ্টা করছে

নির্যাতিতার সাথে কথা বলে জানা যায়, তাঁর চাচাতো বোনের স্বামী নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী ইউনিয়নের ঠেঙাহাটি গ্রামের ফরিদ মিয়া (৪০) বেড়ানোর কথা বলে বাড়ি থেকে স্থানীয় একটি বাসষ্ট্যান্ডে নিয়ে যায়সেখানে যাবার পর তাকে অপরিচিত দুই যুবকের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয় ফরিদতাঁকে সেখানে কোমল পানীয় পান করতে দেয়া হয়এর পরের ঘটনা তার মনে নেই

ঘুম ভাঙার পর তরুণী নিজেকে একটি নির্জনস্থানের একটি ঘরে দেখতে পায়যুবকদের আলাপচারিতায় ওই জায়গাটি চান্দনা মৌচাক এলাকা বলে জানতে পারেপরে ওই যুবকরা এসে প্রতিদিন পালাক্রমে ধর্ষণ করে চলে যাওয়ার সময় খাবার ও পানি রেখে যেতএভাবে চারদিন নির্যাতন সহ্য করার পর মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়েসে তাদের কাছ থেকে মুক্তি চাইলে তারা তাকে (তরুণীকে) দুই হাজার টাকায় ফরিদের কাছ থেকে কিনে এনেছে জানিয়ে আবারও নির্যাতন চালিয়ে চলে যায়একদিন কৌশল খাটিয়ে ঘরের দরজা ফাঁক করে মেয়েটি সেখান থেকে পালিয়ে সালমা নামে এক নারীর বাসায় গিয়ে আশ্রয় নেয়সেখানে সে গৃহপরিচারিকার কাজ নিলেও যুবকদের হাতে ধরা পড়ার আশংকায় ওই বাসা থেকে বের হতো নাসালমা এ বিষয়টি লক্ষ্য করে তরুণীকে কারণ জিজ্ঞেস করলে সে ঘটনাটি খুলে বলে

 পরে বাসার মালিক তাকে কিশোরগঞ্জগামী একটি বাসে উঠিয়ে দেয়বাসে চড়ার তথ্যে তরুণীর পরিবারের লোকজন ধারণা করছে চান্দনা মৌচাক এলাকাটি গাজীপুর জেলায় হতে পারেঘটনাটি তরুণীর মুখ থেকে শুনে গ্রামের এক শিক্ষিকা (নাম পত্রিকায় প্রকাশ হোক তা তিনি চান না) মেয়েটিকে  নিয়ে নান্দাইল থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দেন

ওসি বলেন, মেয়েটি শুধু ফরিদের নামটি বলতে পেরেছেঅন্য দুই যুবকের কথা বললেও তাদের নাম ও ঠিকানা বলতে পারেনিতিনি আরও বলেন, ফরিদ গ্রেপ্তার হলেই ওই যুবকদের পরিচয় পাওয়া যাবেঅভিযুক্ত ফরিদের বক্তব্য জানতে গত দুদিন তাঁর শ্বশুর বাড়ি ফরিদাকান্দা ও নিজবাড়ি ঠেঙাহাটি গ্রামে গিয়ে তাঁকে পাওয়া যায়নিঅন্য দুই যুবকের পরিচয় জানতে চাইলে তরুণী বলে,ওরা ফরিদের পরিচিত তাদের সে চেনে না

19 September 2014

ব্রিজের ওপর দুপাড়ের মানুষের ঢল
ঈদকে সামনে রেখে নান্দাইল-বালিপাড়া ব্রিজটি অস্থায়ীভাবে খুলে দেয়া হলো

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহে নান্দাইল ও ত্রিশাল উপজেলার মধ্যে সরাসরি যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম নান্দাইল-বালিপাড়া ব্রিজটি (সেতু) চলাচলের জন্যে খুলে দেয়া হয়েছেআজ শুক্রবার দুপুরে ব্রিজটির পশ্চিমপাড় আতাউরের মোড় এলাকায় আয়োজিত এক পথসভায় উপস্থিত হয়ে নান্দাইলের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদিন খান ও ত্রিশালের সংসদ সদস্য হাজী এমএ হান্নান সেতুটি অস্থায়ীভাবে লোকচলাচলের জন্যে উন্মুক্ত করে দেনআসন্ন ঈদ উপলক্ষে চারটি উপজেলাসহ অন্যান্য এলাকার লোকজন ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর নবনির্মিত এই ব্রিজটি ব্যবহার করে সরাসরি ঢাকার সাথে যোগাযোগ করতে পারবে

ব্রিজ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, ত্রিশাল উপজেলার বালিপাড়া ও নান্দাইল বেতাগৈর ইউনিয়নের লোকজনের মধ্যে উৎসবে আমেজ বিরাজ করছেব্রিজের পশ্চিম পাশে অবস্থিত ত্রিশালের আউলিয়া নগর গ্রামের অশীতিপর বৃদ্ধা মাজেদা খাতুন লাঠিতে ভর দিয়ে ব্রিজটি দেখতে এসেছেনতিনি বলেন, আইজ আমার কাছে ঈদের আগেই ঈদের মত আনন্দ লাগতাছেকোনদিন ভাবি নাই এইহানে বিরিজ (সেতু)অইবোনান্দাইলের চরভেলামারি গ্রামের খোকন মিয়া বলেন, অহন সহজেই নদ পারি দিয়ে প্রয়োজনীয় কাজ কতে পারবো
বালিপাড়া এলাকার শাহাদাত হোসেন (৩০) বলেন, নদ পাড়ি দেয়ার জন্যে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ঘন্টার পর ঘন্টা খেয়াঘাটে বসে অপেক্ষা করতে হতোশফিকুল ইসলাম বলেন ব্রহ্মপুত্র নদ পার হতে মাথাপিছু ৪০টাকা গুনতে হতোসেতু চালু হওয়ায় সাধারণ মানুষ খেয়াঘাট কর্তৃপক্ষের জিম্মি হওয়ার হাত থেকে বেঁচে যাবে

সরেজমিনে দেখা যায় সড়ক ও জনপথ কর্তৃপক্ষের আওতাধীন ৪৭৭ মিটার দৈর্ঘের সেতুটি নির্মাণ কাজ গত জুনে শেষ করা হয়এতে ব্যয় হয় প্রায় ২৩ কোটি টাকাতবে সেতু এলাকায় এখনও বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়নিএ কারণে রাতের বেলা চলাচল করতে গিয়ে যানবাহন ও পথচারিদের নিরাপত্তায় ব্যঘাত ঘটনার আশংকার কথা জানালেন দুই এলাকার লোকজন

জানতে চাইলে নান্দাইলের সাংসদ আনোয়রুল আবেদিন খান নান্দাইল নিউজকে বলেন, মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে আসন্ন ঈদ উপলক্ষে ব্রিজটি অস্থায়ীভাবে খুলে দেয়া হয়েছেত্রিশালের সাংসদ এমএ হান্নান নান্দাইল নিউজকে বলেন, আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার আগেই বিদ্যুতের ব্যবস্থা ও ব্রিজ এলাকায় নিরাপত্তার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করা হবেওই পথ সভায় নান্দাইল ও ত্রিশাল উপজেলার আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন

18 September 2014


ছয় সদস্যের পরিবারের মধ্যে চার জনই প্রতিবন্ধী
সিএনজি চালকের পরিবারের কান্না থামছে না

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
নতুন একটি কবর খোঁড়া হচ্ছেপাশে রাখা হয়েছে কাফনের কাপড়বেশি করে রাখা হয়েছে লোবান ও আতরকারণ যে মৃতদেহটি কবরে দাফন করা হবে সেটি অর্ধগলিতবাড়ির ভেতর থেকে ভেসে আসছে কান্নার আওয়াজকিছুক্ষণ পর পর এক বৃদ্ধা বিলাপ করে যাচ্ছেন আমার পুঁতটারে হাত বাইন্দা ফালাইয়া থইতো,মারলো কেরেএই বলেগত পাঁচদিন এই পরিবারের সদস্যরা আশায় ছিলেন বাজার-সদাই নিয়ে ফিরে আসবে ছেলেটিকিন্তু দিনশেষে লাশ মেলার খবর পায় তাঁরাএরপর থেকে কান্না আর থামছে না তাদেরতবে শোকের চেয়ে বেশি চিন্তা তাদের কিভাবে চলবে পরিবারের সাত সদস্যের ভরণ পোষণ

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের বারুই গ্রামের কড়ইতলা সিএনজি চালক মো. আবু হানিফার লাশ পাওয়া যায় গৌরীপুর উপজেলায়বুধবার বোকাইনগর উপজেলার একটি বিলে লাশটি দেখতে পেয়ে লোকজন পুলিশে খবর দেয়আজ বৃহস্পতিবার আবু হনিফার বাড়িতে গিয়ে এ চিত্র দেখতে পাওয়া যায়

হানিফার মা আয়েশা আক্তার (৬৫) বলেন, গত শনিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) তাঁর ছেলে সিএনজি নিয়ে বের হওয়ার সময় বলে যায়,‘এই বেলাটা যা হোক কিছু একটা করে চালিয়ে নাওআমি যাত্রী নিয়ে গৌরীপুরের শাহগঞ্জ বাজারে যাচ্ছিভাড়ার টাকা হাতে পেয়ে বাজার সদাই নিয়ে ফিরবো কিন্তু ছেলে তাঁর ফিরে আসেনিরাতেও ফিরে না আসায় তাঁর সন্ধানে লোক লাগানো হয়পরদিন নান্দাইল চৌরাস্তার সিএনজি চালক সংগঠনের পক্ষ থেকে ময়মনসিংহের বিভিন্ন সিএনজি ষ্টেশনে হানিফা নিখোঁজের প্রচার পত্র বিলি করা হয়গত সোমবার নান্দাইল মডেল থানায় সাধারণ ডাইরি করে হানিফার বড় ভাই মো. শওকত আলীকিন্তু কিছুতেই তাঁর সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না

হানিফার চাচা হাফেজ মো. শাহাব উদ্দিন (৬০) বলেন,গত বুধবার গৌরীপুরে একটি মৃতদেহ উদ্ধারের খবর পান তাঁরাপরে সেখানে গিয়ে সেটি আবু হনিফার মৃতদেহ বলে সনাক্ত করেনপরে গৌরপুর থানা পুলিশ সাইফুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে তাঁর দেহ তল্লাশি করে আবু হনিফার চালক লাইসেন্সটি পায়পুলিশ ওই সূত্র ধরে হানিফের মৃত্যুর ঘটনাটি তদন্ত ও সিএনজি উদ্ধারের চেষ্টা করছে

বাড়িতে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আবু হানিফের পরিবারটি সাত সদস্যেরতাঁর ভাই ,বোন ও ছেলেসহ অনেকেই প্রতিবন্ধী স্ত্রী শাহনাজ অন্তসত্বাউপার্জনের একমাত্র পথ বলতে সিএনজি চালনা থেকে আয় করা ভাড়াএই আয় থেকে সিএনজির মালিককে মাসে দিতে হতো দশ হাজার টাকাবাকি যা আয় তা দিয়ে চলতো সাত সদস্যের ভরণ পোষণের খরচতাই শোক ছাপিয়ে পরিবারটির এখন বড় দুশ্চিন্তা হয়ে দাড়িয়েছে একমাত্র উপার্জনক্ষম সদস্যকে হারানোনিহতের ভাবি আমেনা খাতুন বলেন, যারা হানিফাকে হত্যা করেছে তাদের বিচার চাইপথে বসার হাত থেকে পরিবারটিকে রক্ষার জন্যে সরকারের সহায়তা চাই

নান্দাইল চৌরাস্তা এলাকায় অবস্থিত সিএনজি ষ্টেশনে গেলে একাধিক চালক কান্নারত অবস্থায় জানায় হানিফার অমায়িক ব্যবহারের জন্যে তাঁকে আমরা ভুলতে পারছি নাতবে হানিফার মৃত্যুর ঘটনাটি বুঝিয়ে দিচ্ছে আমাদের কোন নিরাপত্তা নেইএ সময় হানিফার প্রতিবন্ধী  ছেলে তানজিনকে (৪) ষ্টেশনে এসে আব্বা আব্বা বলে ডাকতে শোনা যায়শিশুটির এ ডাক শোনে অনেকেই স্থির থাকতে পারেননি

17 September 2014

নান্দাইলে ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা, অতপর বখাটেদের পলায়ন
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে আজ বুধবার সকালে মাদ্রাসায় যাওয়া পথে একদল বখাটে অপহরণের চেষ্টা চালায়অপহরণকারীদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া মেয়েটি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর আব্বাসিয়া দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্রী

সে নান্দাইল উপজেলার বেতাগৈর ইউনিয়নের পূর্বআত্মারামপুর গ্রামের হাছেন আলীর কন্যাঅপহরণের সময় ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয় এলাকাবাসী অপহরণকারীদের ধাওয়া করলে বখাটেরা পালিয়ে যায়পরে এঘটনার প্রতিবাদে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে

জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জের মগটুলা ইউনিয়নের নাওড়ী গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে রিয়াদ মিয়া ছাত্রীটিকে (নাম প্রকাশ করা হলো না) প্রায়ই প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করতোআজ বুধবার সকালে রিয়াদের বন্ধু সগ্রাদী গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে রাহাত মিয়া ও তাজপুর গ্রামের নসর আলীর ছেলে রুমন মিয়াকে একটি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশায় ছাত্রীটিকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেএ সময় ছাত্রীটির চিৎকারে বখাটে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়

মাদ্রাসার সুপার আব্দুস সাত্তার জানান, প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় ছাত্রীটিকে অপহরণের খবরে ছাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছেএ ঘটনায় ছাত্রীর পরিবার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন

নান্দাইল মডেল থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) গোপাল কৃষ্ণ দাস জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছিজড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে

16 September 2014


নান্দাইলে  তিনটি রোগ পরীক্ষা কেন্দ্রে ভ্রাম্যমান
আদালতের অভিযান জরিমানা আদায়
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার কয়েকটি রোগ পরীক্ষা কেন্দ্রে (প্যাথলজিক্যাল ল্যাব)  অভিযান চালিয়ে অনিয়ম পাওয়ার অভিযোগে জরিমানা আদায় করা হয়েছেকর্তৃপক্ষের অনুমোদন না থাকায় জরিমানা আদায় করে একটি ক্লিনিকের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছেআজ মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার দিকে নান্দাইল উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা ও নির্বাহি হাকিম মো. অহিদুল ইসলাম আদালত পরিচালনা করে এই জরিমানা আদায় করেন

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ভ্রাম্যমান আদালত রোগ পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে দেখতে পান মেয়াদ উত্তীর্ণ রি-এজেন্ট ব্যবহার করে রোগীদের মল-মুত্র, রক্ত কফ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছেপরে দোষ স্বীকার করায় রীতা প্যাথলজিক্যাল ল্যাবের মালিক মো. আজিজুল হককে ও ইসলাম ডায়োগনষ্টিক এন্ড হেলথ সেন্টারের মালিক মো. পলাশকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করার পাশাপাশি তাঁদের সতর্ক করে দেন আদালতইসলাম ডায়োগনষ্টিক এন্ড হেলথ সেন্টারের একটি ফ্রিজে রোগীদের রক্ত সংরক্ষণের পাশাপাশি রি-এজেন্ট সংরক্ষণ করে রাখার প্রমাণ পান আদালত

একই এলাকায় অবস্থিত  আল নছর ক্লিনিকে আদালত অভিযানে গিয়ে দেখতে পান ক্লিনিক পরিচালনায় প্রতিষ্ঠানটির কোন অনুমোদন নেইপরে সেই প্রতিষ্ঠানের মালিক মো. আবু নছরকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করার পাশাপাশি ক্লিনিকটি সীলগালা করে দেন আদালতআদালতকে সহায়তা করেন নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চিকিৎসক মো. আবুল কাশেমওই প্রতিষ্ঠানগুলো নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রবেশ পথে অবস্থিত

10 September 2014

নান্দাইলে অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধার, গ্রেপ্তার দুই
জন্ম সনদ জাল করে বিয়ের অভিযোগ
স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
ময়মনসিংহের নান্দাইল মডেল থানার পুলিশ গত মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে নরসিংদী জেলার মাধবদী পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার একটি বাসা থেকে নান্দাইলের এক স্কুলছাত্রীকে (নাম প্রকাশ করা হলো না, বয়স-১৩) উদ্ধার করেছেপরিবারের অভিযোগ তাকে অপহরণ করে ওই বাসায় আটকে রাখা হয়েছিলএ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ওই বাসা থেকে মো. আবু হানিফ ও তার বাবা মো. হাবিবুল্লাহকে গ্রেপ্তার করেআজ বুধবার তাদেরকে ময়মনসিংহের বিচারিক হাকিমের আদালতে পাঠায় পুলিশ

মেয়ে অপহরণের পর তার বাবা বাদি হয়ে গত ১৫ আগষ্ট নান্দাইল মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেনতাতে তিনি উল্লেখ করেন,তাঁর মেয়ে উপজেলার শেরপুর ইউনিয়নের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রীবিদ্যালয়ে যাতায়াতের সময় তাকে উত্ত্যক্ত করতো পাশের মেরাকোনা গ্রামের  মো. হাবিবুল্লাহর ছেলে আবু হানিফউত্ত্যক্ত না করতে আবু হানিফকে কয়েকবার সতর্ক করা হয়গত ৭ আগষ্ট তাদের এলাকার পাচরুখি-সংগ্রামখালি সড়ক দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে জোর করে তাঁর মেয়েকে তুলে নিয়ে যায় আবু হানিফমেয়ের বাবা ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে আবু হানিফের বাড়িতে গিয়ে মেয়েকে ফেরত চানকিন্তু আবু হানিফের পরিবার তার কথা আমলে নেয়নিপরে তিনি থানায় মামলা করেন

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আবু তালিব খান বলেন, তথ্যদাতা (সোর্স) ও মুঠোফোন অনুসরন করে তিনি নরসিংদীর মাধবদী পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করেনআবু হানিফ ও তার বাবা পুলিশ হেফাজতে থাকায় তাদের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নিতবে তাঁদের পরিবারের সাথে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায় ওই স্কুলছাত্রীকে আবু হানিফ বিয়ে করেছেন

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্কুল ছাত্রীর বাবা (আবুল কাশেম) বলেন, নাবালিকা মেয়েকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করাও দন্ডনীয় অপরাধতবে ওই স্কুলছাত্রীর দুটি জন্মনিবন্ধন সনদ পাওয়া গেছেশেরপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন মিল্টন ভুইয়া স্বাক্ষরিত একটি সনদ দেয়া হয়েছে ৫ নম্বর নিবন্ধন বই থেকেসেটিতে স্কুলছাত্রীর জন্মের সাল ১৯৯৫ সাল উল্লেখ রয়েছে

অন্যটি শেরপুর ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্রের (ইউআইএসসি)  ৬ নম্বর বই থেকে দেয়া জন্ম সনদে জন্মের সাল উল্লেখ করা হয়েছে ২০০৩ সালেপ্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সনদে ছাত্রীর জন্ম তারিখ ২০০৩ সালের পয়লা জানুয়ারি উল্লেখ রয়েছেছাত্রীর বাবার অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানের দেয়া ওই ভুয়া জন্ম সনদ ব্যবহার করেই আবু হানিফ তাঁর নাবালিকা মেয়েকে বিয়ে করেছে

এক শিশুর দুটি জন্ম সনদ দেয়া প্রসঙ্গে ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন মিল্টন ভুইয়া বলেন, ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্র (ইউআইএসসি) থেকে প্রদত্ত জন্মসনদটি বৈধঅন্যটিতে তাঁর স্বাক্ষরটি জাল করা হয়েছেজাল সনদটি আদালতে প্রদর্শন করে ওই মামলায় আগে গ্রেপ্তার হওয়া এক আসামী জামিন নিয়েছে বলে তিনি দাবি করেন



09 September 2014


বঙ্গবন্ধুর ভাষণ নিয়ে মিথ্যাচার
নান্দাইলের এক প্রবীণ অধ্যাপকের অভিনব প্রতিবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ●  নান্দাইল নিউজ
আকাশ কালো করে মুষলধারে বর্ষণ হচ্ছেএরকম দুর্যোগপুর্ন আবহাওয়ার মধ্যেই হাতে তৈরি প্রতিবাদ লিপি সম্বলিত একটি ফ্যাস্টুন বহন করে মহাসড়ক ধরে হেঁটে চলছেন এক প্রবীণ অধ্যাপককৌতুহল নিয়ে কেউ তাঁর কাছে এগিয়ে গেলে তাঁর হাতে ধরিয়ে দিচ্ছেন একটি কাগজসেটিতে লেখা রয়েছে বঙ্গবন্ধু ৭ই মার্চের ভাষণ শেষ করেছিলেন শুধু জয়বাংলা বলেএভাবেই তিনি মুক্তিবাহিনীর উপপ্রধান একে খন্দকারের লেখা ১৯৭১ ভেতরে বাইরে বইয়ে উল্লেখ করা জয় পাকিস্তান তথ্যটির প্রতিবাদ জানাচ্ছেন

প্রতিবাদ জানানো শিক্ষক হচ্ছেন ময়মনসিংহের নান্দাইল শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত  অধ্যাপক আফেন্দি নূরুল ইসলামতিনি একাই আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে এগারটার দিকে প্রতিবাদ জানিয়ে নান্দাইল পৌরশহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেনএ সময় অনেক কৌতুহলি লোক তাঁর বহন করা ফ্যাস্টুনটি খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পড়তে দেখা গেছে

আফেন্দি নূরুল ইসলাম বলেন, ১৯৭১ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন৭ই মার্চের রমনার রেসকোর্স ময়দানে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ভাষন মঞ্চের কাছে (এ্যানকোজার ঘেসে) বসেছিলেনতিনি বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ওই ভাষনটির আদ্যোপান্ত শুনেছেনতিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ভাষণ শেষ করেছেন এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম.........স্বাধীনতার সংগ্রামজয়বাংলা বলে ভাষণ শেষ করেনবঙ্গবন্ধুকে ওই সময় পাকিস্তান বলতে তিনি শুনেননি

এছাড়া তিনি ও তাঁর বন্ধুরা বঙ্গবন্ধুর ভাষণে উজ্জীবিত হয়ে ঢাকার বিভিন্ন রাজপথে গাছের গুড়ি ফেলে গাড়ি চলাচলে বাধা ও ২৬ মার্চে পিলখানায় পাক বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধরত ইপিআর বাহিনীর জন্যে খাবার সংগ্রহ করে তা পাঠানোর ব্যবস্থা করেনতাই একে খন্দকারের লেখা বইয়ে উল্লেখ করা জয় পাকিস্তান বলে ভাষন শেষ করার ওই তথ্যকে নির্লজ্জ জঘন্যতম মিথ্যা দাবি করে এই প্রতিবাদ জানাচ্ছেন

বিজ্ঞাপন (১৬.০৯.১৪)

PHOTO GALLARY

অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইট-এর কোন-ও অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি|

No part of content of this website may be copied or reproduced without permission.

NANDAIL NEWS PHOTO GALLARY